1. hossainahmednumanbd@gmail.com : admin : হোসাইন আহমদ
  2. Chilauranews@gmail.com : হোসাইন আহমদ : হোসাইন আহমদ
জগন্নাথপুর উপনির্বাচনে জামানত হারালেন আতাউর ও হারুন রাশীদ
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুর উপনির্বাচনে জামানত হারালেন আতাউর ও হারুন রাশীদ

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৯ মে, ২০২৩
19 1901241008
ছবি- সংগৃহীত

জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে ৫ প্রার্থীর মধ্যে দুই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তাঁরা হলেন- জাতীয় পার্টির প্রার্থী আতাউর রহমান ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর হারুন রাশীদ। আতাউর রহমানের প্রাপ্ত ভোট ১২৮৬ এবং হারুন রাশীদের প্রাপ্ত ভোট ৪৭৭৫।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুরাদ উদ্দিন হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করে

 

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, নির্বাচনী আইন অনুযায়ী কাস্টিং ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগের কম ভোট যদি কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী পান- তাহলে তাঁর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়। উপনির্বাচনের মোট ৪৫ হাজার ৬২০ ভোট কাস্টিং হয়েছে। ফলে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী যদি ৫ হাজার ৭০২ ভোটের চেয়ে কম ভোট পান, তাহলে তাঁর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে।

তিনি আরও বলেন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে ৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

 

এরমধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. নুরুল ইসলাম নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২২ হাজার ২১২ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ তালহা আলম পান ১১ হাজার ২০৩ ভোট ও জমিয়ত উলামায়ে ইসলামের প্রার্থী আব্দুল কাইয়ুম কামালি সিতু পেয়েছেন ৬ হাজার ১৪৪ ভোট।

 

এরা মোট ভোটের ৮ ভাগের এক ভাগের বেশি ভোট পেয়েছেন। ফলে তাঁদের জামানত বাজেয়াপ্ত হচ্ছে না। তবে অপর ২ প্রার্থী নির্বাচনী আইন অনুযায়ী মোট ভোটের এক-অষ্টমাংশের কম অর্থাৎ ৫ হাজার ৭০২ ভোটের কম পাওয়ায় তাঁদের জামানত বাজেয়াপ্ত হবে।

উল্লেখ্য, গেল বছরের ২৬ ডিসেম্বর জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আকমল হোসেন মারা যাওয়ায় গত বৃহস্পতিবার উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Facebook Comments Box

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮-২০২৪ চিলাউড়া.কম